January 27, 2023, 2:28 am
শিরোনাম:
ফরিদগঞ্জের পাইকপাড়ায় গোল্ডকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠিত ফরিদগঞ্জে এলজিইডির টেন্ডারকৃত রাস্তায় কাজ না করিয়ে অন্য রাস্তায় করার অভিযোগ নারায়ণপুর প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন সভাপতি আরিফ বিল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক হাসিব হাইমচরে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ফরিদগঞ্জ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের মক্তবের শিক্ষার্থীদের পুরস্কার বিতরণ ও বিদায়ী ছাত্রদের সংবর্ধনা ফরিদগঞ্জে ডাকাতিয়া নদী অবৈধ ভাবে দখল \ উদ্ধারে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন ফরিদগঞ্জে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগীতা শুরু ২৫ জানুয়ারি হাইমচরে নব-নিযুক্ত সপ্রাবি সহকারী শিক্ষকদের যোগদানে নবীন বরন ফরিদগঞ্জের চির্কা চাঁদপুর কলেজে ফেল করা শিক্ষার্থীদের তালা দেয়ার প্রতিবাদ করায় শিক্ষক লাঞ্ছিত \ শিক্ষকদের ধর্মঘট ফরিদগঞ্জে বন্ধ ইটভাটা চালুর দাবীতে শ্রমিকদের গণস্বাক্ষর

হাইকোর্টে রীটপিটিশন স্থিতাবস্থা থাকা সত্ত্বেও চাঁদপুরে সংখ্যালঘুর ঘর উচ্ছেদের অভিযোগ!

Reporter Name

স্টাফ রিপোর্টারঃ হাইকোর্টে রীটপিটিশন স্থিতাবস্থা থাকা সত্ত্বেও চাঁদপুরে সংখ্যালঘুর ঘর উচ্ছেদের অভিযোগ তুলেছেন এক ভুক্তভোগী। তিনি এর সুষ্ঠু সমাধান পেতে সাবেক জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশের কাছে ডজনখানেক বার তার গণশুনানীতে অংশ নিয়ে অভিযোগের তীর ছুঁড়ে দিয়েছেন। ঘটনাটি চাঁদপুর সদরের শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের লোদেরগাঁও গ্রামের মহামায়া বাজার সংলগ্ন দত্ত বাড়ির অমৃত লাল দত্তের(৮৮) সাথে ঘটেছে বলে তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের মাধ্যমে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

জানা যায়, ২০২১ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সরকারি লিজের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে ৬ জন লীজগ্রহীতাকে সম্পত্তি বুজিয়ে দেন চাঁদপুর সদরের এসিল্যান্ড মোঃ হেলাল উদ্দীন। আর এই উচ্ছেদের সময়ই স্থানীয় অমৃত লাল দত্তের ব্যাক্তি মালিকানাধীন প্রায় সাড়ে ৮ শতাংশ জায়গার বাড়ীঘরও উচ্ছেদ করা হয়েছে মর্মে সাবেক জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশের নিকট ডজনখানেক অভিযোগপত্র দেওয়া হয়।

২১ জুন মঙ্গলবার সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গেলে অমৃত লাল দত্তের টিনের ঘরের বিভিন্ন আসবাবপত্র গচ্ছিত রাখতে দেখা যায়।

এ সময় বিভিন্ন কাগজ পত্র দেখিয়ে অমৃত লাল দত্ত গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, ১৯০ নং আর এস খতিয়ানে এক একর ১৫ শতক ভূমির অন্দরে ৬৮৯ নং দাগে ৮ শতাংশ ৩৮ পয়েন্ট ভূমির উপর একটি পুরাতন ঘর বিদ্যমান ছিল। পরে বিগত ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ সালে হাইকোর্টে রিট পিটিশন ( ৮১৫৮/২১) করা হয় এবং সরকারের উপর স্থিতাবস্থা দেওয়া হয়। এরপরও ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ সালে কোন নোটিশ ছাড়াই আমার বাসস্থানসহ মালামাল উচ্ছেদ করা হয়। এতে আমার প্রায় ১২ লক্ষ টাকার মালামালের ক্ষতি হয়।

অমৃত লাল দত্ত গণমাধ্যমকর্মীদের আরও বলেন, এটি মানহানীকর ঘটনা উল্লেখ করে আমি এর সুষ্ঠু সমাধান পেতে নিয়মিতভাবে সাবেক জেলা প্রশাসকে অঞ্জনা খান মজলিশের সাথে যোগাযোগ করি। এমনকি তার গণশুনানিতে ডজন খানেক বার অংশও নিয়েছিলাম। পরে জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ এই সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দেওয়ার কিছুদিনের মধ্যে একপর্যায়ে তিনি বদলি হয়ে যাওয়ায় বিষয়টি এখনো ঝুলে আছে। তাই বিষয়টির সুষ্ঠু সমাধান পেতে আমি বর্তমান জেলা প্রশাসক, স্থানীয় সাংসদসহ সর্বপোরি প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


ফেসবুক পেজ