February 4, 2023, 2:56 pm
শিরোনাম:
হাইমচরে মেঘনা একতা যুব সমাজ কল্যান সংস্থার প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে মেডিকেল ক্যাম্পিং শীত বস্ত্র বিতরণ। শেখ হাসিনা দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফুটানোর জন্য কাজ করছে. . দীপু মনি, ফরিদগঞ্জে কাবিটার কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ নিউ আইডিয়াল ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরুস্কার বিতরণ ইজতেমার মাঠের ন্যায্য অধিকার নিয়ে সংবাদ সম্মেলন রাস্তায় স্পিডব্রেকার, সাইড ওয়াল ভেঙ্গে, লাল নিশানা উড়িয়ে ট্রাক্টর দিয়ে মাটি কাটছে ইউপি চেয়ারম্যান! হাইমচরের চরভৈরবী ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আলী আখনের নিজ অর্থায়নে রাস্তা মেরামত টঙ্গীর সিরাজ উদ্দিন সরকার বিদ্যানিকেতন এন্ড কলেজ, নবীন বরন,ওরিয়েন্টেশন ক্লাস ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত টঙ্গীতে আদালতের বুঝিয়ে দেয়া জমিতে কাউন্সিলরের বাধা টঙ্গীতে গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাথে কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের পরিচিতি ও মতবিনিময় সভা

লক্ষ্মীপুরে জমি নিয়ে সংঘর্ষ, নিহত১ আহত ৪

Reporter Name

নূর মোহাম্মদঃ
জমি সংক্রান্ত বিরোধে লক্ষ্মীপুরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে হোসেন আহমদ (৫৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৫ জন। আহতদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক ও পুলিশ সুপার। আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) দুপুরে সদর উপজেলার দিঘলী ইউনিয়নের রমাপুর গ্রামে এ সংঘর্ষ হয়। পুলিশি হস্তক্ষেপে ইতোমধ্যে এ ঘটনায় ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, আবদুস সাত্তার ও ইউনুছ মিয়ার সাথে দীর্ঘদিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ ছিল। দুপুরে ইউনুছ মিয়ার অনুসারী সাইদুর রহমান মিলনের নেতৃত্বে ১০/১৫ জন আবদুস সাত্তারের বাড়িতে হামলা করে। এতে বাধা দেয় হোসেন আহমদসহ অন্যরা। এক পর্যায়ে হামলাকারীরা এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে হোসেন আহমদ, নাজমুল ইসলাম, কামরুল হোসেন, আমির হোসেন ও আকরাম হোসেনসহ ৫ জনকে। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান হোসেন। সংঘর্ষে আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে এ নিয়ে এলাকায় এখনও উত্তেজনা বিরাজ করছে।

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মো. আনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন, অবস্থার অবনতি হওয়ায় চারজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাদের সবারই অতিরিক্ত রক্ষক্ষরণ হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশ সুপার ড. এইচএম কামরুজ্জামানও একজনের মারা যাওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন, নিহতের লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। তিনি জানিয়েছেন, আতদের প্রত্যেকের মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করার হিহ্ন রয়েছে। জড়িতদের ধরতে পুলিশি অভিযান চলছে। আর কী কারণে এ ঘটনা ঘটেছে সেটিও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


ফেসবুক পেজ