January 29, 2023, 6:38 am
শিরোনাম:
ফরিদগঞ্জে অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ে বিশেষ ক্যাম্পেইন হাইমচরে আদালতে নিষেধাজ্ঞা অন্যমান্য ভবন নির্মানের অভিযোগ ফরিদগঞ্জ এ আর পাইলট মডেল উবি এক্স স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের যাত্রা শুরু ফরিদগঞ্জের পাইকপাড়ায় গোল্ডকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠিত ফরিদগঞ্জে এলজিইডির টেন্ডারকৃত রাস্তায় কাজ না করিয়ে অন্য রাস্তায় করার অভিযোগ নারায়ণপুর প্রেসক্লাবের নতুন কমিটি গঠন সভাপতি আরিফ বিল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক হাসিব হাইমচরে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ফরিদগঞ্জ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের মক্তবের শিক্ষার্থীদের পুরস্কার বিতরণ ও বিদায়ী ছাত্রদের সংবর্ধনা ফরিদগঞ্জে ডাকাতিয়া নদী অবৈধ ভাবে দখল \ উদ্ধারে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন ফরিদগঞ্জে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগীতা শুরু ২৫ জানুয়ারি

বকশীগঞ্জে গাছের সাথে বেঁধে গৃহবধুর নির্যাতন, আটক-১

Reporter Name

জামালপুর প্রতিনিধিঃ
জামালপুরের বকশীগঞ্জে গাছের সাথে বেঁধে গৃহবধুকে নির্যাতনের অভিযোগে বড় ঝা কে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় স্বামীসহ ভাসুর ও তার স্ত্রীরা পলাতক রয়েছে।

আজ সোমবার দুপুরে জামালপুরের বকশীগঞ্জে সদর ইউনিয়নের মালিরচর জিগাতলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, ১২ বছর আগে বকশীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলমাছ আলীর ছোট ভাই আসাদুল হক ও দেওয়ানগঞ্জের ঝাউডাঙ্গা গ্রামের মাহজন মিয়ার মেয়ে মাহামুদা আক্তার বিয়ে হয়। ৩ বছর আগে আসাদুল সৌদি আরবে চলে যায়। মাস খানেক আগে আসাদুল দেশে ফিরে এসে স্ত্রী মাহামুদাকে নির্যাতন করতে থাকেন।

গত মাসের ২৩ তারিখে আসাদুল তার স্ত্রীকে বাবার বাড়ীতে রেখে আসেন। এদিকে বিভিন্নভাবে মাহামুদা শোনতে থাকে তাকে তালাক দিয়েছে। খবর শোনে সোমবার দুপুরে মাহামুদা স্বামীর বাড়ীতে আসলে তার ৩ ঝা ও স্বামী মিলে একটি গাছের সাথে বেঁধে রেখে নির্যাতন করে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে গৃহবধুকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। আটক করা হয় বড় ঝা শীলা বেগমকে। বাকীরা সবাই বাড়ী থেকে পালিয়ে যায়।

তবে এ বিষয়টি অস্বীকার করেছেন তার ভাসুর স্থানীয় বকশীগঞ্জ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান। তার ছোট ভাই এর স্ত্রী মাহামুদা বেগম বাড়ীতে এসে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। তাকে নিবৃত্ত করতে গাছে সাথে বেঁধে রাখা হয়। এ সময় একটি তালাক নামাও দেখানো হয় স্বামীকে।

মাহামুদা আক্তারের মা মনোয়ারা বেগম জানান, মেয়ের সুখের জন্য ৫ লাখ টাকা খরচ করে মেয়ে জামাই আসাদুলকে বিদেশ পাঠানো হয়েছে। বিদেশে গিয়ে সমস্ত টাকা পয়সা বড় ভাই ও ভাবীদের নামে পাঠিয়ে দেয় আসাদুল। মাহামুদার নামে মাত্র প্রতিমাসে ২ হাজার টাকা হাত খরচ দিয়েছে। দেশে ফিরে মাহামুদার সাথে খারাপ আচারণ করতে থাকে। সোমবার দুপুরে বাড়ী ফিরে আসলে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন করে আসাদুল ও তার ভাই ও তার স্ত্রীরা।

এ বিষয়ে বকশীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরিফ উদ্দিন জানান, ঘটনা শোনার সাথে সাথে গৃহবধুকে উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে। এ ঘটনায় শীলা বেগম নামে একজনকে আটক করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


ফেসবুক পেজ