1. admin@admin.com : administratoir :
  2. haimcharbarta2019@gmail.com : haimchar :
  3. support@wordpress.com : MUWY : MUWY
  4. saikatkbagerhat@gmail.com : Saikat A : Saikat A
  5. wadminw@wordpress.com : wadminw : wadminw
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:০০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
হাইমচরে গাজীপুর ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৪, সাধারণ সদস্য ২৩ ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য ১০ জন মননোয়ন ফরম দাখিল আজ হাইমচরে চরভৈরবী ইউপি নির্বাচন চেয়ারম্যান পদে ৫ জন সাধারণ সদস্য ২৯ মহিলা সদস্য ১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা হাইমচরে গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকা পেলেন মোঃ হাবিবুর রহমান গাজী দীর্ঘ ১০ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হাইমচরে চরভৈরবী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার পক্ষে প্রচারণা করে নীলকমল ইউপি চেয়ারম্যান সউদ আল নাসের শিক্ষামন্ত্রী’র উন্নয়ন ধারাবাহিকতা রক্ষায় নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করুন….. নুর হোসেন পাটোয়ারী বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মাহবুবুল বাসার কালু পাটোয়ারী ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী ফরিদগঞ্জ মজিদিয়া কামিল মাদরাসার ফাজিল অনার্সের শিক্ষার্থীদের সবক ও কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে জামালপুরের ইসলামপুরে ট্রাক চাপায় শিশুর মৃত্যু মাদারগঞ্জে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতিকে মারধর, প্রাণে মেরে ফেলার হমকী

ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

  • আপডেট টাইম: সোমবার, ২১ মার্চ, ২০২২
  • ১৭২ বার দেখা

মেহেদী হাছান ফরিদগঞ্জ চাঁদপুর প্রতিনিধি:

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার ফরিদগঞ্জ দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদে চলছে হরিলুট, চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন রিপনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন বিষয়ে একের পর এক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছেই। জেলা প্রশাসক কার্যালয়সহ বিভিন্ন দপ্তরে ওই ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের ৩ জন সদস্য লিখিতভাবে অভিযোগ দায়ের করেছেন। এছাড়াও ইউনিয়ন পরিষদের সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষকে হয়রানীর অভিযোগও রয়েছে।
ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত আসনের সদস্য ঝর্ণা বেগম, জানাহারা বেগম ও শিরিনা আক্তারের লিখিত বক্তব্য ও এলাকাবাসীর কাছ থেকে পাওয়া তথ্য সূত্রে জানা যায়, চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন রিপন মহিলা মেম্বার ঝর্ণা বেগম ও জাহারা বেগমের নামে দুটি কাবিখা প্রকল্প উপজেলা প্রকল্প বাস্তাবয়ন অফিসে জমা দেন।

ওই প্রকল্প দুইটির মধ্যে একটির কোনো অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। অপর একটি দায়সারা ভাবে সম্পন্ন করেই মহিলা সদস্যদের স্বাক্ষর জাল করে প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ করেছেন। মহিলা মেম্বার শিরিনা বেগম ও ঝর্ণা বেগমের নামে বিগত দিনগুলোতে টি. আর, কাবিখা, এলজি, এসপি, ও ৪০ দিনের কর্মসূচিসহ কয়েকটি প্রকল্পের বিলও ডিওতে স্বাক্ষর করিয়ে বিলসমূহ উত্তোলন করে চেয়ারম্যান নিজেই আত্মসাৎ করেন।

এতে ভুক্তভোগী মহিলা সদস্যরা চরম হয়রানীর শিকার হয়েছেন। মহিলা সদস্য জাহানারা বেগম জানান, আমি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে অদ্যাবদি কোন প্রকল্প আমাকে দেওয়া হয়নি। সরকারের মহিলা কোটায় প্রকল্প থাকলেও চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন রিপন নিজেই মহিলা মেম্বারদের স্বাক্ষর জাল করে নিয়ে যান।এছাড়াও পরিষদের চলমান মেয়াদকাল দু’বছর অতিক্রম করলেও প্যানেল চেয়ারম্যান নামে রেজুলেশন না করা, পরিষদের মাসিক সভায় সদস্যদের স্বাক্ষর জাল, ট্যাক্সের টাকা আত্মসাৎ, মেম্বারদের সম্মানি ভাতা নিয়মিত প্রদান না করা, ইউনিয়নের সকল ওয়ার্ড থেকে হোল্ডিং নাম্বার বাবদ ২ শ থেকে ৫ শত টাকা আদায় করাসহ জন্ম সনদ, বয়স্ক, বিধবা, মাতৃকালিন ভাতার কার্ড ও ওয়ারিস সনদসহ বিভিন্ন ভাতার কার্ড প্রদানে অনিয়মের এমন সব অভিযোগ করে চলতি মাসের ৭ তারিখে উক্ত ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের ৩ জন সদস্য-ই চাঁদপুর জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ইউনিয়নের বেশ কয়েকজন বাসিন্দা জানিয়েছেন, চেয়ারম্যান নিয়মিত অফিসে থাকেন না, আমাদের প্রয়োজনীয় বিভিন্ন কাগজে স্বাক্ষর করতে হলে হয় চেয়ারম্যান সাহেবের বাড়িতে গিয়ে অন্যথায় সচিবের কাছে দিয়ে এসে দীর্ঘ অপেক্ষার প্রহর গুণতে হয়। ক্ষোভ প্রকাশ করে তারা আরো বলেন, বিভিন্ন ইউনিয়নে তো প্যানেল চেয়ারম্যান থাকে আমাদের ইউনিয়নে প্যানেল চেয়ারম্যান দিলে চেয়ারম্যান সাহেবের কি এমন ক্ষতি হয়ে যাবে ?

এদিকে চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন রিপন জানান, আমি সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্যদের সব চাইতে বেশি প্রকল্প দিয়েছি, আমার বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ মিথ্যা। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি যদি দীর্ঘ সময় নিয়ে দেশের বাহিরে যাই, তখন হয়তো প্যানেল চেয়ারম্যানের বিষয়টি বিবেচনায় আসবে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মিল্টন দস্তিদার জানান, চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মহিলা মেম্বাররা যে অভিযোগ করেছেন, ওই প্রকল্পের প্রথমে বিল উত্তোলন করে তাদেরকে কিছু টাকা দেওয়া হয়েছে, পরবর্তিতে বাকি বিল উত্তোলন করে হয়তো মহিলা মেম্বারদেকে টাকা দেওয়া হয়নি। প্রকল্পের সভাপতি ছাড়া অন্য কাউকে বিল প্রদানের কোনো নিয়ম আছে কি প্রশ্নের জবাবে তিনি বক্তব্য দিতে রাজী হয়নি।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিউলী হরি জানান, লিখিত বক্তব্য হাতে পাইনি, পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরও
হাইমচর বার্তা  ২০২২ © স্বর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট @ Rahat IT Ltd.

ওয়েবসাইট ডিজাইন প্রযুক্তি সহায়তায়: রাহাত আইটি লিঃ

togel onlineslot gacorslot88slot maxwinslot gacor hari inislot gacorlinetogelagen bo slot gacor