February 1, 2023, 10:28 am
শিরোনাম:
টঙ্গীতে আদালতের বুঝিয়ে দেয়া জমিতে কাউন্সিলরের বাধা টঙ্গীতে গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাথে কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের পরিচিতি ও মতবিনিময় সভা হাইমচরে মাদক বিরোধী ৮ম বার্ষিক মিনি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রকল্প পরিচালক মো. গোলাম ইয়াজদানীর ওপর হামলার প্রতিবাদ হাইমচরে মানববন্ধন সুইড বাংলাদেশ জামালপুর শাখার কার্যনির্বাহী কমিটির সভা অনুষ্ঠিত জামালপুরে মহাত্মা গান্ধীর ৭৫তম তিরোধান দিবস পালিত হাইমচরে এমজেএস বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের নিয়োগ পরিক্ষা সর্ম্পন্ন ফরিদগঞ্জে অনলাইনে ভূমি উন্নয়ন কর আদায়ে বিশেষ ক্যাম্পেইন হাইমচরে আদালতে নিষেধাজ্ঞা অন্যমান্য ভবন নির্মানের অভিযোগ ফরিদগঞ্জ এ আর পাইলট মডেল উবি এক্স স্টুডেন্টস এসোসিয়েশনের যাত্রা শুরু

ফরিদগঞ্জে মামলার বাদীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় হাত-পা বেঁধে নির্যাতনের ঘটনায় থানায় মামলা গ্রেফতার-৩

Reporter Name

মেহেদী হাছান ফরিদগঞ্জ(চাঁদপুর) প্রতিনিধি:

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে মামলার বাদীকে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরোচিত নির্যাতন করেছে এলাকার একদল প্রভাবশালী। প্রকাশ্যে সন্ত্রাসী কায়দায় এ ভয়ানক বর্বরোচিত হামলায় শেখ ফরিদ মৃধা (৪০), ফয়েজ আহমেদ (৪৬) ও গৃহবধু ফাতেমা বেগম(২৩) গুরুতর আহত হয়েছে। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশেরপর অভিযুক্তদের আটক করে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

১৬ সোমবার দুপুরে ফরিদগঞ্জে সাংবাদিকদের প্রেসব্রিফিং করে বিষয়টি জানিয়েছেন (ফরিদগঞ্জ-হাজীগঞ্জ) থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সোহেল মাহমুদ পিপিএম।

জানাগেছে, উপজেলার ১৫ নং রূপসা উত্তর ইউনিয়নের রুস্তুমপুর গ্রামের শেখ ফরিদ মৃধা গংদের সাথে প্রতিবেশি দেলোয়ার হোসেন, লোকমান আমিন, মোজাম্মেল হোসেন বাবুল, মোশারফ হোসেন বাহার গংদের সম্পত্তিগত বিরোধ চলে আসছে। এই বিরোধকে কেন্দ্র করে গত ২ মাস আগে শেখ ফরিদগংদের ওপর প্রতিপক্ষরা হামলা করলে বিষয়টি থানা পুলিশ তদন্ত করে নিয়মিত মামলা হিসেবে গ্রহন করে তদন্ত রিপোর্ট আদালতে পাঠায়। তাই ভুক্তভোগীদের ওপর অভিযুক্তরা ক্ষিপ্ত হয়ে ১৩ মে শুক্রবার প্রকাশে স্থানীয় রুস্তুরপুর বাজারে মামলার বাদীকে হাত-পা বেঁধে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বরোচিত নির্যাতন করেছে।

বিষয়টি গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশ হলে ১৫মে শুক্রবার রাতে ফরিদগঞ্জ থানায় ৫ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করা হয়। রাতেই ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অভিযুক্ত মো. দেলোয়ার হোসেন (৬৫), মো. লোকমান হোসেন (৬৮), মাহাবুব আব্দুল সোহেল (৩২)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বাকিদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

হামলার শিকার শেখ মৃধা জানান, শুক্রবারে আমরা দুই ভাই প্রয়োজনীয় কাজে রুস্তুমপুর বাজারে গেলে আমাদের প্রতিপক্ষ দেলোয়ার হোসেন, লোকমান আমিন, মোজাম্মেল হোসেন বাবুল, হোসেন ফকির, সোহেল হাজী, মিজান হাজী গ্যাং পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আমাদের হাট-পা বেঁধে বেধড়ক মেরেছে। এ সময় খবর পেয়ে আমাদের পরিবারের সদস্যরা বাঁচাতে এলে তাদের ওপরও হামলা করে তারা। পরে স্থানীয়রা আমাদের উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসলে পুলিশ পায়ের বাঁধ খুলে চিকিৎসার জন্য পাঠায়। আমরা এর বিচার চাই।

এ সময় ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শহীদ হোসেন, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কুদ্দুসসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.


ফেসবুক পেজ